আমি কারো পক্ষে-বিপক্ষে না, আমি অনিয়মের বিরুদ্ধে: ইলিয়াস কাঞ্চন

0

নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেছেন, আমার বিরুদ্ধে নানা বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে আমি কারো পক্ষে বা বিপক্ষে কথা বলি না। আমি অনিয়মের বিরুদ্ধে কথা বলি। যারাই অনিয়ম করেন, তাদের বিপক্ষে কথা বলি। কোনো চালক যদি মনে করেন, আমি তাদের বিরুদ্ধে কথা বলি, এটা দুঃখজনক।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে নিরাপদ সড়ক চাই’র ২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আপনারা শুরু থেকেই এই আইনের প্রতি স্বতঃস্ফূর্তভাবে সমর্থন দিয়ে গেছেন।

আজ পরিবহন সেক্টরের কিছু মানুষের নৈরাজ্যের কারণে আপনাদেরও ভোগান্তি হচ্ছে। তবে আমি মনে করি এই ভোগান্তি সাময়িক। দীর্ঘস্থায়ী সমাধানের জন্য আপনাদের এরকম সাময়িক ভোগান্তি পোহাতে হতে পারে। আপনারা ধৈর্য হারাবেন না।

অনুষ্ঠানে নিরাপদ সড়ক বাস্তবায়নে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে চারজনকে সম্মাননা জানানো হয়। সম্মাননাপ্রাপ্তরা হলেন- শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ নূর নাহার ইয়াসমীন, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) ফয়সল মাহমুদ এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তেজগাঁও জোনের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর বিপ্লব ভৌমিক।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন নিরাপদ সড়ক চাই’র মহাসচিব সৈয়দ এহসান-উল হক কামাল, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক সাদেক হোসেন বাবুল, নিরাপদ সড়ক চাই’র যুগ্ম-মহাসচিব লিটন এরশাদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে নিরাপদ সড়ক চাই’র নিয়মিত প্রকাশনা ‘নিরাপদ’র মোড়ক উন্মোচিত হয়।

বিশ্বের সবচেয়ে সুদর্শন ১০ ক্রিকেটার, তালিকায় ৩ বাংলাদেশি!

ক্রিকেট বর্তমান বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় একটি খেলা। তবে এটা এখন আর শুধুমাত্র খেলা নয়, তার থেকেও অনেক বেশি কিছু৷ উপমহাদেশে এই খেলাটার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। ক্রিকেটাররাও এখন শুধুমাত্র খেলার মাঠে আবদ্ধ নন। ফ্যাশন দুনিয়াতেও তারা সাবলীল। উপমহাদেশের মতো ক্রিকেট নিয়ে পাগলামি পৃথিবীর অন্য কোন প্রান্তে নেই।

আর মেয়েরা যে কারণে ক্রিকেট পছন্দ করে তার আসল কারণ কিছু সুদর্শন ক্রিকেটারের জন্য বলে ধারণা করা হয়। বিশ্বের যে সকল ক্রিকেটার বর্তমানে সবচেয়ে হ্যান্ডসাম তাদের ১০ জনের নাম তুলে ধরা হল_

১) অ্যালিস্টার কুকঃ সুদর্শন ক্রিকেটারের তালিকায় অ্যালিস্টার কুকের নামটা অবশ্যই থাকবে। কুকের ‘লুকস অ্যান্ড স্টাইল’ শুধুমাত্র ক্রিকেট প্রেমীরাই নয়, ভালোবাসবে ক্রিকেটের বাইরের জগতের মানুষরাও। ২০০৬ সালে ভারতের বিরুদ্ধে অভিষেক ঘটে তার। তারপর তিনি হয়ে ওঠেন ইংলান্ড দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। শুধু দেখার দিক দিয়েই নয়, মানুষ হিসেবেও কুকের তুলনা হয় না।

২) মাশরাফি বিন মর্তুজাঃ বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায় মাশরাফি বিন মর্তুজা। তিনি একজন ডানহাতি পেসার। মাশরাফি বিন মর্তুজার লুকস অ্যান্ড গ্ল্যামার অত্যন্ত আকর্ষণীয়। মাশরাফি এমন একজন খেলোয়াড়ের কোন হেটার্স নেই। যার জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বি। মাঠ ও মাঠে বাইরে দায়িত্বশীল মাশরাফি জয় করে নিয়েছেন কোটি ভক্তের মন।তিনি দেখতেও অনেক সুদর্শন।

৩) মাইকেল ক্লার্কঃ ২০০৪ সালে ভারতের বিরুদ্ধে খেলার সময় মাইকেল ক্লার্কের বয়স বেশ কমই ছিল। তখন তাকে এতটা ‘কিউট’ দেখতে ছিল, মনেই হত না তিনি কোন ক্রিকেট খেলোয়াড়। ক্রিকেটে যখন বড় চেহারার ক্রিস গেইল ও ম্যাথু হেডেন দাপটের সঙ্গে খেলছেন, ক্লার্ক তখন ছিলেন একটু অন্যরকম। ক্রিকেট ব্যাটের পাশাপশি, নিজের রূপ দিয়েও অনেক ফ্যান বানিয়েছিলেন ক্লার্ক। হ্যান্ডসাম ক্রিকেটারের তালিকায় তিনি রয়েছেন তিন নম্বরে৷

৪) সাকিব আল হাসানঃ হঠাৎ করেই আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় পড়ে এক বছরের জন্য ক্রিকেট মাঠের বাইরে চলে গেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশের সর্বকালের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। ব্যাটে-বলে দারুণ পারফরম্যান্স দেখিয়ে ক্রিকেট বিশ্বকে মুগ্ধ করেছেন সদ্য সাবেক এই টাইগার অধিনায়ক।

সাকিবকে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপনও বলা যায় অনায়াসে। সেটা যেমন তার পারফর্মেন্সের কারণে তেমনি তার আকর্ষণীয় লুকস অ্যান্ড গ্ল্যামারের কারনেও। মাঠে ও মাঠের বাইরে সমান সপ্রতিভ এই অলরাউন্ডার। বিভিন্ন বিজ্ঞাপন চিত্রে মডেল হয়ে দর্শকদের হৃদয় জয় করেছেন তিনি।

৫) ব্রেট লিঃ অস্ট্রেলিয়া দলের সাবেক গতি দানব ব্রেট লি। বল হাতে ব্যাটম্যানদের উইকেট ছিটকে দেওয়ার পাশাপাশি, লুকস অ্যন্ড গ্ল্যামার দিয়ে বহু নারী হৃদয়ে ঝড় তুলেছেন ব্রেট লি। তাই লুকসের জন্য ভারত থেকে অস্ট্রেলিয়া, সব জায়গাতেই তার ফ্যানের সংখ্যা কম নয়। ক্রিকেটের পাশাপাশি গান-বাজনার প্রতি সখ রয়েছে লির। নিজে গান গেয়েছেন এবং অভিনয় করেছেন সিনেমাতেও। সব মিলিয়ে তিনি একটা প্যাকেজই বটে।

৬) শহীদ আফ্রিদিঃ হ্যান্ডসাম ক্রিকেটারের তালিকায় শাহীদ আফ্রিদির থাকাটা একপ্রকার নিশ্চিতই বটে। পাকিস্তানের তরুণীদের মধ্যে তিনি সবসময়ই হট ফেভারিট। ব্যাট হাতেও তিনি বিখ্যাত। বিখ্যাত তিনি বুমবুম নামেও। ক্রিকেটের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডারের তকমা দেওয়া হয় তাকে।

৭) বিরাট কোহলিঃ ভারতের বর্তমান অধিনায়ক তিনি। বর্তমান সময়ের বিশ্বের সেরা স্টাইলিশ ব্যাটসম্যান। বাস্তব জীবনেও তিনি বেশ ফ্যাশন সচেতন। বিয়ে করেছেন বলিউড সুন্দরী অনুশকা শর্মাকে।

৮) এবি ডিভিলিয়ার্সঃ হ্যান্ডসাম ক্রিকেটারের তালিকায় এবি ডিভিলিয়ার্সের নাম আট নম্বরে। ব্যাট হাতে বিপক্ষকে নাস্তানাবুদ করার পাশাপাশি, নিজের স্টাইল দিয়ে নারী ভক্তদের মন কেড়েছেন এই দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটার। মাঠ এবং মাঠের বাইরে তিনি সমান জনপ্রিয়।

৯) কেভিন পিটারসেনঃ ৬ ফুট ৫ ইঞ্চি উচ্চতার কেভিন পিটারসেন ক্রিকেট জগতের অনতম হ্যান্ডসাম ক্রিকেটার। ২০০৪ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে পিটারসেনের। ক্রিকেটার হিসেবে নাম কেনার পাশাপাশি, ইংল্যান্ডে তিনি বিখ্যাত স্টাইল আইকন হিসেবে। বর্তমানে তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে ফ্যাশন দুনিয়ায় ব্যস্ত সময় পার করছেন।

১০) তাসকিন আহমেদঃ বাংলাদেশ জাতীয় দলে গতি তারকা হিসেবে তার আবির্ভাব। অভিষেকেই তিনি তারকায় ঠাঁসা ভারতীয় দলের বিপক্ষে গতির ঝড় তুলে ৫ উইকেট শিকার করে হইচই ফেলে দেন। অত্যন্ত সুদর্শন এই টাইগার ক্রিকেটার তার হ্যান্ডসাম লুক ও ফ্যাশন সচেতনতার কারণে অনেক তরুণীর ঘুম কেড়েছেন। জাতীয় দলের অন্যতম সুদর্শন ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদ।