কট্টর খ্রিস্টান ধর্ম প্রচারক মার্কিন নারীর ইসলাম গ্রহণ!

এক সময় কট্টর খ্রিস্টান মৌলবাদী ধর্ম প্রচারক ছিলেন। টানা ৭ বছর ধরে করেছেন খ্রিস্টান ধর্মের প্রচার। কিন্তু শেষমেশ ইসলাম ধর্মের মহিমায় মুগ্ধ হয়ে হয়েছেন মুসলিম। ওই নারীর নাম সুই ওয়াটসন।

ইসলাম গ্রহণ করার পর নাম পরিবর্তন করে রাখেন খাদিজা ওয়াটসন। যক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় জন্ম। ধর্মতত্ত্বের ওপর রয়েছে তার সর্বোচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা।

ইসলাম গ্রহণ করা সম্পর্কে তিনি আরব নিউজকে বলেন, আমি একদিন এক নারীর সঙ্গে দেখা করি যিনি ইসলাম গ্রহণ করেছেন। আমি তাকে ইসলামের চোখে কীভাবে নারীদের দেখা হয় তা জানতে চাই।

আমি তার উত্তর শুনে অবাক হই যে নারীদের সমান ও শ্রদ্ধার চোখে দেখা হয় ইসলামে। এরপর আমি তার কাছে আল্লাহ এবং হযরত মোহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে জানতে চাই। এর জবাবে তিনি আমায় এক ইসলামিক সেন্টারে নিয়ে যান।

সেখানে তারা আমায় কিছু বই দিয়ে তা পড়তে বলে। তা পড়ে আমি মুগ্ধ হয়ে যাই। যতই এসব পড়তে থাকি আমার ইসলামের প্রতি মুগ্ধতা বাড়তেই থাকে। শেষমেশ ইসলাম গ্রহণ করি। বর্তমানে খাদিজা সৌদি আরবের জেদ্দায় আল-হামরা এডুকেশন ফাউন্ডেশনের শিক্ষক।

ইসরাইলি ছোঁড়া ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করল সিরিয়া!

ইহুদিবাদী ইসরাইল আবারো সিরিয়ার ওপর ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে তবে কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করেছে সিরিয় সেনারা। সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এ খবর দিয়েছে।

রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সানা বলেছে, “আজ বুধবার সকালে আমাদের বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ইসরাইলের হামলা প্রতিহত করেছে। কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র শনাক্তের পর সেগুলো ধ্বংস করে দিয়েছে।”

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় দা’রা প্রদেশের তেল আল হারা পার্বত্য এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। গোলান মালভূমির ওপর নজরদারির জন্য ওই এলাকাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

২০১৮ সালের জুনে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী জাবহাতুন নুসরার কাছ থেকে ওই এলাকাটি মুক্ত করতে সক্ষম হয় সিরিয় বাহিনী। এদিকে, গতকাল সিরিয়ার সামরিক বাহিনী হামা প্রদেশের তাল মেলে গ্রামে একটি ড্রোন ভূপাতিত করেছে।

তাকফিরি সন্ত্রাসীরা ওই ড্রোন আকাশে উড়িয়েছিল। ইহুদিবাদী ইসরাইল গত কয়েক বছর ধরে মাঝেমধ্যেই সিরিয়ার ওপর বিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে আসছে।

সিরিয়া যেসব উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে লড়াই করছে সে লড়াই বানচাল করার জন্য ইসরাইল এসব হামলা চালিয়ে আসছে। যারা উগ্র সন্ত্রাসীদেরকে অর্থ, অস্ত্র ও সামরিক সহযোগিতা দিচ্ছে তার মধ্যে ইসরাইলও রয়েছে

আরো সংবাদ পরতে পারেন

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে