ব্যারিস্টার হলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কন্যা জাইমা

0

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নাতনী, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং ডা. জোবাইদা রহমানের একমাত্র কন্যা জাইমা রহমান বার অ্যাট-ল ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের বিখ্যাত প্রতিষ্ঠান ‘ইনার টেম্পল’ থেকে বার অ্যাট ল’ (লিঙ্কস ইন) করেন তিনি।

এর আগে তিনি লন্ডনের কুইন মেরি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইনে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করেন। তারেক রহমান ও জোবাইদা রহমানের মাঝে জাইমা রহমানের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয় বুধবার। বিএনপির নেতাকর্মীরা জানান, জাইমা রহমানের ব্যারিস্টারি ডিগ্রি লাভ জিয়া পরিবার তথা জাতীয়তাবাদী পরিবারের জন্য অত্যন্ত খুশির খবর।

তবে এমন এক সময় তার সাফল্যের খবর আসলো যখন দাদি বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ৬৬৫তম দিন অসুস্থ অবস্থায় কা’রাব’ন্দি। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমি ব্যারিস্টার জাইমা রহমানকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। একইসাথে তার উত্তোরত্তর সাফল্য-সমৃদ্ধি কামনা করছি।

জানা গেছে, জিয়া পরিবারের আগামী উত্তরসূরি জাইমা রহমানের এই সাফল্যের জন্য বিএনপি ছাড়াও বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ তাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানানো অব্যাহত রেখেছেন। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও

ডা. জোবাইদা রহমানের একমাত্র কন্যা জাইমা রহমান ওয়ান ইলেভেনের পর থেকে বাবা-মা’র সঙ্গে লন্ডনে অবস্থান করছেন। দাদি খালেদা জিয়ার অনুপ্রেরণায় জাইমা রহমান আইনী পেশা বেছে নেন।

ফেসবুকে জিয়া পরিবারের ছবি পোস্ট করে বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। বিএনপির কেন্দ্রীয় একজন নেতা লিখেছেন ‘অভিনন্দন ব্যারিস্টার জাইমা রহমান। যাত্রা শুভ হোক।

দাদা-দাদি ও বাবার মতো-জিয়া পরিবারের তৃতীয় প্রজন্মের আলোর দিশারী হয়ে নিশ্চয়ই একদিন কোটি কোটি মানুষকে পথ দেখাবেন। পথ হোক মসৃন ও কুসুমাস্তীর্ণ। রাব্বুল আলামিন দীর্ঘ ও নেক হায়াৎ দান করুক। আমিন।’

খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারি শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস তার স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। এ হার্টলি কনগ্রেজুলেশস টু ব্যারিস্টার জাইমা রহমান। কনগ্রেজুলেশনস টু হার প্রাউড ফাদার দেশনায়েক তারেক রহমান এন্ড ডা. জোবাইদা রহমান, এ প্রমিনেন্ট কার্ডিওলোজিস্ট।

জাইমা রহমানকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে ইউনিভার্সিটি টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইউট্যাব)। সংগঠনের এক বিবৃতিতে বলা হয়- দাদি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ইচ্ছেতেই বিলেতে আইন পেশায় পড়াশোনা করেন জাইমা রহমান।

এছাড়া দাদা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান, বাবা তারেক রহমান ও মা ডা. জোবায়দা রহমানের অনুপ্রেরণাও কম নয়। জাইমা ব্যারিস্টার হওয়ায় জিয়া পরিবারের জন্য অত্যন্ত সম্মান ও গৌরবের। আমরা তাকে জানাই শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

উল্লেখ্য, ঢাকার হলিফ্যামিলি হাসপাতালে জাইমার জন্ম। জন্মের পর থেকে ঢাকা সেনানিবাসে শহীদ মইনুল সড়কের বাসায় দাদী বেগম খালেদা জিয়ার সাথে বড় হয়েছেন তিনি। সেই বাসায় তার বাবা-মাও থাকতেন। ঢাকার বারিধারায় আইএসডি (ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অব ঢাকা) স্কুলে ইংরেজী মাধ্যমে পড়াশুনা করেছেন জাইমা।