ছাত্রদল হোক বা শিবির হোক,কোন ছাত্রকে নি’র্যাতন সহ্য করা হবে না : ভিপি

0

ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর হুশয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ছাত্রদল, শিবির বা অন্য কোনো সংগঠনের নেতাকর্মীদের নি’র্যাতন সহ্য করা হবে না।

গত সোমবার বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ হ’ত্যার প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ হুশিয়ার দেন।

ভিপি নুর বলেন, ‘ক্যাম্পাসে যদি কোনো শিক্ষার্থী নি’র্যাতনের শিকার হয়, সে ছাত্রদল করতে পারে, শিবির করতে পারে বা সে যদি বাম সংগঠন বা অন্য কোনো সংগঠন করতে পারে। তাই বলে তাকে নির্মমভাবে প্রহার করা হবে! কিন্তু আমরা পুরোপুরি সুস্থ মস্তিষ্কের ছাত্র হয়ে সেই অন্যায় মেনে নিতে পারি না।’

তিনি বলেন, ‘ঢাবি ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের নেতাদের কুকুরের মতো মা’রা হয়েছিল। এই ছাত্রলীগের কুলাঙ্গাররা কোটা আন্দোলনের সময় সেন্টার লাইব্রেরির সামনে আমাকে নির্মমভাবে মে’রেছিল। সেদিন যদি সাধারণ ছাত্ররা বের হয়ে আসত তা হলে ছাত্রলীগ ক্যাম্পাস ছাড়া হয়ে যেত। ছাত্রলীগকে ক্যাম্পাস ছাড়া করা আমাদের উদ্দেশ্য নয়, কিন্তু ছাত্রলীগের স’ন্ত্রাসীদের ক্যাম্পাস ছাড়া করতে হবে।

নুর বলেন, ডাকসুর ভিপি হয়েও আমরা নি’র্যাতনের শিকার হয়েছি। সেখানে সাধারণ ছাত্র ও জনগণ কীভাবে ছাত্রলীগের হাতে নিরাপদ হবে।

তিনি আরও বলেন, আজ পুরো বাংলাদেশের মানুষ নি’র্যাতিত। সবার পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। আজ যদি আপনারা ঐক্যবদ্ধ হতে না পারেন, তা হলে এই স্বৈ’রশাসন ও স্বৈ’রশাসকদের জাঁতাকলে পিষ্ট হতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে ডাকসু ভিপি বলেন, সমাবেশে কোটা আন্দোলনের নেতা নুর বলেন, ‘কোনো ছাত্র যদি অন্যায় অপরাধ করে থাকে, তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন রয়েছে। তাদের হাতে তুলে দিন। তারা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে। কিন্তু ছাত্রলীগকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের গায়ে হাত তোলার অধিকারটা কে দিল? প্রধানমন্ত্রীর কাছে এই প্রশ্ন রাখতে চাই।

প্রসঙ্গত, রোববার গভীর রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে ফাহাদকে পি’টিয়ে হ’ত্যা করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। ভারতকে পানি, গ্যাস ও বন্দর দেয়ার চুক্তি বিরোধিতা করে শনিবার বিকালে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন ফাহাদ। এর পরই রাতে তাকে ডেকে নিয়ে হ’ত্যা করা হয়।