রণক্ষেত্র বোরহানউদ্দিন, পুলিশের মা’মলায় আসামি ৫ হাজার !

0

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক যুবকের হ্যাক করা ফেসবুক আইডি থেকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে ‘ধর্ম নিয়ে আপত্তিকর পোস্ট’ দেয়া কেন্দ্র পুলিশ-জনতা সংঘ’র্ষের ঘটনায় মাম’লা হয়েছে। এ মা’মলায় অজ্ঞাতনামা পাঁচ হাজার জনকে আসামি করা হয়েছে।

রোববার দিনগত রাতে বোরহানউদ্দিন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবিদ হোসেন বাদী হয়ে এ মা’মলাটি দায়ের করেন। ভোলার সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) শেখ সাব্বির হোসেন জানান, সংঘ’র্ষের ঘটনায় ৩০ পুলিশ আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১০ জন চিকিৎসাধীন। পুলিশ এখন পর্যন্ত ১৫ জনকে আটক করেছে। সমাবেশস্থলসহ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

বোরহানউদ্দিন থানার ওসি এনামুল হক বলেন, পুলিশের ওপর হা’মলার ঘটনায় এ মা’মলা করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এদিকে সোমবার সকালে ৬ দফা দাবি আদায়ে সমাবেশের ডাক দেয় ‘সর্বদলীয় ইসলামী ঐক্য পরিষদ’।

তবে প্রশাসন অনুমতি দেয়নি বলে সে সমাবেশ স্থগিত করা হয়েছে বলে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা তাজউদ্দিন। পুলিশের সঙ্গে রোববার ‘তৌহিদি জনতা’র সংঘ’র্ষে ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলা সদর রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক যুবকের হ্যাক করা ফেসবুক আইডি থেকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে ‘ধর্ম নিয়ে আ’পত্তিকর পোস্ট’ দেয়া কেন্দ্র করে দিনভর এ সংঘ’র্ষ হয়। এতে অন্তত দুজন ছাত্রসহ চারজন নিহত এবং ৩০ পুলিশ সদস্যসহ শতাধিক লোক আহত হয়েছেন।

রোববার সকাল ১০টায় বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ঈদগাহ মাঠে সমাবেশ শেষে শুরু হওয়া এ সংঘ’র্ষে গু’লি, টিয়ারশেল ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। সং’ঘর্ষে আহত ৪৫ জনকে ভোলা সদর ও ৩০ জনকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং বাকিদের বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

আহতদের বেশিরভাগই গু’লিবিদ্ধ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চার প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। বিজিবি, পুলিশ ও র‌্যাবের টহল জোরদার করার পর বিকালেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। নিহতরা হলেন- বোরহানউদ্দিন উপজেলার মহিউদ্দিন পাটওয়ারীর মাদ্রাসাছাত্র মাহবুব (১৪),

উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের দেলোয়ার হোসেনের কলেজপড়ুয়া ছেলে শাহিন (২৩), বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মাহফুজ (৪৫) এবং মনপুরা হাজিরহাট এলাকার বাসিন্দা মিজান (৪০)।

সুত্র: যুগান্তর

ইমরান খানের শান্তির উদ্যোগে সৌদির সাড়া ইতিবাচক: কোরাইশি

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরাইশি বলেছেন, উপসাগরীয় অঞ্চলে উত্তেজনা লাঘবে ইমরান খানের চেষ্টায় ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে সৌদি আরব। শান্তি প্রতিষ্ঠার একটি সুযোগ দিতে রিয়াদ একমত হয়েছে বলেও জানালেন তিনি। পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ডনের খবর থেকে এমন তথ্য জানা গেছে।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সৌদি নেতৃবৃন্দ ইতিবাচকভাবে সাড়া দিয়েছেন। তারা একমত পোষণ করেছেন যে কূটনৈতিক পথই বেছে নিতে হবে এবং আলোচনার মাধ্যমে মতপার্থক্য দূর করতে হবে। সৌদি সফরে দেশটির বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ইমরান খান।

খবরে বলা হয়েছে, রিয়াদে পাকিস্তানি প্রতিনিধিদের আঞ্চলিক সংঘাত নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। ইরানি মানসিকতা ও পরিস্থিতি নিয়ে ইসলামাবাদের দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরা হয়েছে। গত রোববার ইমরান খান তেহরান সফরে গেলে দেশটির নেতৃবৃন্দ তার চেষ্টাকে স্বাগত জানিয়েছেন।

এক সাক্ষাৎকারে ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ বলেছেন, সরাসরি কিংবা মাধ্যম ব্যবহার করে সৌদির সঙ্গে আলোচনায় তার দেশ প্রস্তুত। কোরাইশি বলেন, আলোচনার মূল বক্তব্য তুলে ধরতে চাইলে আমাকে বলতে হবে যে, এ অঞ্চলজুড়ে পুঞ্জীভূত হওয়া যুদ্ধ ও সংঘাতের মেঘ কেটে গেছে।

মূলত আঞ্চলিক সংঘাত এড়াতে ভূমিকা রাখতেই ইমরান খানের এই সফর, জানিয়ে কোরাইশ বলেন, কারণ যে কোনো সংঘাত এ অঞ্চল ও বৈশ্বিক অর্থনীতির জন্য বিপর্যয়কর পরিণতি বয়ে আনবে। ইয়েমেনে একটি অস্ত্রবিরতির সম্ভাবনাও উজ্জ্বল বলে জানিয়েছেন পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী।