রমজানের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভা থেকে ছাত্রশিবিরের ২৩ নেতাকর্মী আটক

যশোরের মণিরামপুরে ইসলামী ছাত্র শিবিরের এক আলোচনা সভা থেকে সাংগঠনিক বই ও ব্যানারসহ ২৩ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মাহে রমজানকে সামনে রেখে শুক্রবার যশোরের মনিরামপুরের হায়াতপুর-শাহপুর হাফিজিয়া মাদরাসায় ছাত্রশিরির রমজানের পূর্ব প্রস্তুতি ও রমজানের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে। এসময় স্থানীয় পুলিশ তাদের আটক করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, যশোর জেলা ইসলামী ছাত্রশিবিরের পূর্ব শাখা প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুল্লাহ, খুলনা ডুমুরিয়া উপজেলার চুকনগর কলেজের প্রভাষক মনিরুল ইসলাম, যশোর মশিয়ুর রহমান আইন মহাবিদ্যালয়ের ছাত্র শামীম হোসেন, কেশবপুর উপজেলার সাগরদাড়ি গ্রামের হাবিব হাসান, ভাল্লুকঘর গ্রামের বিল্লাল হোসেন,

মির্জানগর গ্রামের সিরাজুল ইসলাম, মণিরামপুর উপজেলার ঝাঁপা গ্রামের রাসেল কবির, হানুয়ার গ্রামের এনামুল, খালিয়া গ্রামের আবু মুছা, শ্যামকুড় গ্রামের আহাদ, নোয়ালী গ্রামের সাজিম হোসেন, নেংগুড়াহাট গ্রামের ইয়াছিন আরাফাত, শাহপুর গ্রামের নাজমুস সাকিব, খেদাপাড়ার গোলাম আযম, গালদা গ্রামের খালিদুর রহমান, পারখাজুরা গ্রামের সাইফুল ইসলাম, রোহিতার মাহাফুজ, হাজরাকাটি গ্রামের মেহেদী ও বাপ্পি হোসেন, রত্নেশ্বরপুর গ্রামের মনিরুল ইসলাম ও ইসরাফিল হোসেন, মদনপুর গ্রামের মাছুম বিল্লাহ।

মণিরামপুর থানার ওসি (তদন্ত) এসএম এনামুল হক এই বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, চালুয়াহাটির হায়াতপুর-শাহপুর হাফিজিয়া মাদরাসায় শিবিরের বৈঠক চলছে এমন খবরে পুলিশ সেখানে যায়। এবং সেখান থেকে ২৩ নেতা-কর্মী আটক করা হয়েছে।

জামায়াতের উপজেলা আমীর মাওলানা লিয়াকত হোসেন জানান, রমজানের পবিত্রতা নিয়ে করণীয় নির্ধারণে প্রতিবছরই ছাত্রশিবির নেতাকর্মীদের নিয়ে বৈঠকের আয়োজন করে। শুক্রবার সকালে হায়াতপুর-শাহপুর হাফিজিয়া মাদরাসায় আলোচনা সভা চলছিল। খবর পেয়ে পুলিশ তাদেরকে আটক করেছে।

আরো সংবাদ পরতে পারেন

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে