“পৃথিবীর যেখানেই সন্ত্রাসী কর্মকান্ড হচ্ছে, সেখানেই ইসরাইলের হাত আছে”

লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর উপ-মহাসচিব শেইখ নায়িম কাসেম বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল হচ্ছে বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদের উৎস। বিশ্বের যেখানেই সন্ত্রাসবাদ সেখানেই ইসরাইলের হাত রয়েছে।

তিনি বলেন, মার্কিন হুমকি ও নিষেধাজ্ঞায় আমরা ভীত নই। তাদের এসব তৎপরতা কেবল আমাদের মানসিক শক্তি ও দৃঢ়তাই বাড়িয়ে তোলে। যত কঠিন পরিস্থিতিই আসুক প্রতিরোধ সংগ্রামীরা কখনোই সত্য ও ন্যায়ের পথ পরিত্যাগ করবে না বলে তিনি ঘোষণা করেন।

মধ্যপ্রাচ্যসহ গোটা বিশ্বকেই তারা ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। তিনি বৈরুতে ইমাম মাহদি (আ.) বিষয়ক এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেছেন।

এ সময় তিনি ১৯৯৬ সালে লেবাননে ইসরাইলি আগ্রাসনের কথা তুলে ধরেন। হিজবুল্লাহর উপ-মহাসচিব আরও বলেন, ১৯৯৬ সালের বিজয়ের পর শত্রুরা হিজবুল্লাহর শক্তি-সামর্থ্য সম্পর্কে বার্তা পেয়েছে এবং তারা তা মেনেও নিয়েছে। এরপর ২০০০ ও ২০০৬ সালেও বিজয় এসেছে।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের আগ্রাসন ও দখলদারিত্বের প্রতি মার্কিন সমর্থনের প্রতি ইঙ্গিত করে নায়িম কাসেম বলেন, ইসরাইলের আগ্রাসন, দখলদারিত্ব ও হত্যা-নির্যাতনের প্রতি কোনো মানুষ সমর্থন জানাতে পারে না।

সুত্র: পার্সটুডে

আরো পড়ুন: মুসলমানদের হৃদয়ে আঘাত; ফাঁসির দাবিতে উত্তাল সোশ্যাল দুনিয়া

ইসলাম, নবী মোহম্মদ (সা:) ও পবিত্র কুরআনের সাথে চরম ধৃষ্টতা পূর্ণ আচরণ করেছে প্রবাসে অবস্থিত বাংলাদেশি নাগরিক বিতর্কিত ফেসবুকার সিফাত উল্লাহ সেফুদা।

এ নিয়ে ফেসবুকে নিন্দার ঝড় বইছে। দেশে এনে তার ফাঁসির দাবিতে উত্তাল হচ্ছে পুরো সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।

ফেসবুক লাইভে এসে পবিত্র কুরআন হাতে নিয়ে পাতা ছিঁড়ে টয়লেটে নিক্ষেপ করে। তারপর পবিত্র কুরআনকে জুতা দিয়ে পিঠায়। ইসলাম ও নবী মোহাম্মদ (সা:) কে নিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে করতে লাথি মেরে পবিত্র কুরআন টয়লেটে ছুঁড়ে মারে।

মাহফুজ আব্বাছ নামের এক ফেইসবুকার স্ট্যাটাসে লিখেন, সিফাত উল্লাহ সেফুদা পৃথিবীর যে জায়গায় অবস্থান করুক না কেনো অনতিবিলম্বে এই কুলাজ্ঞারকে এমন শাস্তি প্রদান করা হোক যেটা দেখে পৃথিবীর যে কেউ ইসলাম/কুরআন/রাসূল (সঃ) সম্পর্কে কূরুচি পূর্ণ বক্তব্য দেওয়ার আগে ভয়ে কেঁপে ওঠে।

সাইফুল ইসলাম নামের এক ফেইসবুকার লিখেন, নাউজুবিল্লাহ আস্তাগফিরুল্লাহ,,,,
চাঁদপুরের সেফুদা এই কাফেরের বাচ্চা কিছুক্ষণ আগে লাইভে এসে কুরআন শরীফ ছিড়ে তারপর কমেডে ফেলছে,,

কুরআন শরিফে জুতা দিয়ে আঘাত করছে,,,,,এবং ইসলাম ধর্মকে অনেক অপমান করেছে,আলেমদের কে তো সবসময় গালি দেয়,,আজ তার চেয়ে ডাবল দিয়েছে ,,,,,, সবাই ওর ব্যাপারে ব্যাবস্থা নিন,,,,,,, তাকে সরকারের প্রশাসনের মাধ্যমে দেশে এনে জুতা পিটা করতে করতে জাহান্নামে পাঠিয়ে দেওয়া হউক।

আ‌রেকজন লিখেন, সেফাতুল্লাহ সেফুদা না‌মের এই কুত্তার কি কোন বিচার হ‌বেনা? প্র‌তি‌নিয়ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা কে গালী দিয়ে যা‌চ্ছে।অার অাজ নি‌জের চো‌খে ভি‌ডিও‌তে দেখলাম প‌বিত্র কোরা‌নের পাতা ছি‌ড়ে টয়‌লে‌টের মধ্য ফেল‌ছে অার অশ্লীল ভা‌বে কাবা শরীফ‌কেও গালি দি‌চ্ছে।

এবার সে ইসলাম, নবী ও পবিত্র কোরআনকে নিয়ে গালাগালি করে লাইভ করেছে। অবিলম্বে তাকে দেশে এনে শাস্তির দাবি তুলছে তাই ফেসবুবাসী।

এছাড়া সেফুর কমেন্ট বক্সে নিন্দার ঝড় চলছে। উল্লেখ্য, বিদেশে অবস্থিত এই সিফাত উল্লাহ সেফুদা বিভিন্ন ইস্যুতে ফেসবুক লাইভে গালিগালাজ লাইভ করেই আলোচয় আসে।

আরো সংবাদ পরতে পারেন

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে