বাংলাদেশ থেকে লোকেরা এসে হিংসা,অশান্তি বাধাচ্ছে: মমতা

ভারতের তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, বসিরহাটে বাংলাদেশ থেকে লোকেরা এসে হিংসা,অশান্তি বাঁধিয়েছিলো। শনিবার (১১ মে) পশ্চিমবঙ্গের হাড়োয়ায় নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে একথা বলেন তিনি।

মোদির সমালোচনা করে মমতা বলেন, দাঙ্গা করেই হাতেখড়ি নরেন্দ্র মোদির। অটল বিহারী বাজপেয়ী ধর্ম শেখার কথা বলেছিলেন। কিন্তু মোদিরা ধর্মকে হাতিয়ার করে হিংসা ছড়াচ্ছেন।

মততা অভিযোগ করে বলেন, ভোটে অশান্তি ছড়াতে বাইরের রাজ্য থেকে লোক এনে লুকিয়ে রাখছে বিজেপি।

তিনি বলেন, ভোট কিনতে বিজেপি নেতারা টাকার থলে নিয়ে ঘুরছেন। গাড়ি করে, হেলিকপ্টারে করে টাকা আসছে। বনগাঁ, বসিরহাটের বিভিন্ন জায়গায় টাকা চলে যাচ্ছে।

আরো পড়ুন

মাটির নিচের গোপন কারাগারে ২৪ বছর পরে খুঁজে পাওয়া গেল সুদানের সাবেক মন্ত্রীকে!

আফ্রিকান দেশ সুদানের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী কর্নেল ইব্রাহিম ছামসাদিনের একটি হৃদয়বিদারক ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে উল্লেখ করা হচ্ছে, স্বৈরশাসনের প্রতিবাদ করায় প্রায় ২৪ বছর আগে জেলে পাঠানো ইব্রাহিম ছামসাদিনকে সুদানের রাজধানী খার্তুমের একটি মাটির নিচের গোপন কারাগারে খুঁজে পাওয়া গেছে।

ছবিটিতে দেখা যায়, রোগা-মলিন চেহারায় অপুষ্টিতে ভোগা একজন বৃদ্ধা খালি শরীরে বালির উপর বসে আছেন। তার পরনে একটি জীর্ণশীর্ণ লুঙ্গি। অসহায় দৃষ্টিতে তিনি তাকিয়ে আছেন ক্যামেরার দিকে। ছবিটিতে দেখা যায়, অন্ধাকারে আলো ফেলে ছবি তোলা হয়েছে। সাবেক এই মন্ত্রীকে আটকে রাখা স্থানটি একটি গুহা।

সেই সাথে ইব্রাহিম ছামসাদিনের ঘুমন্ত অবস্থার ছবিও প্রকাশ পায়। সেখানে দেখা যায়, এক টুকরো কাঠের উপর মাথা রেখে বালির উপর শুয়ে আছেন সুদানের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী। জানা যায়, সুদানের স্বৈরশাসক ওমর আল-বশির তার অবৈধ শাসনের প্রতিবাদ করায় ১৯৯৫ সালে দেশটির তৎকালীন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ইব্রাহিম ছামসাদিনকে জেলে পাঠান।

শুধু তাই নয়, ২০০৮ সালে সুদান সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে ঘোষণা করে যে, সাবেক প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ইব্রাহিম ছামসাদিন বিমান দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। আফ্রিকাভিত্তিক একাধিক সংবাদ মাধ্যমের তথ্য অনুসারে, সম্প্রতি সুদানের রাজধানী খার্তুমের একটি মসজিদের আন্ডারগ্রাউন্ডে একটি গোপন কারাগারের খোঁজ পাওয়া যায়।

সেখানে ইব্রাহিম ছামসাদিনকে খুঁজে পাওয়া যায়। ইব্রাহিম ছামসাদিনের বর্তমান অবস্থার সাথে সাথে তার মন্ত্রী থাকাকালীন একটি ছবিও প্রকাশ করে আফ্রিকান গণমাধ্যমগুলো। উল্লেখ্য, দেশটির সাবেক স্বৈরশাসক ওমর আল-বশির নিজেও বর্তমানে জেলখানায় আছেন।

আরো সংবাদ পরতে পারেন

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে