“এস-৪০০ চুক্তি বাতিলের জন্য তুরস্ককে উসকানি দিচ্ছে আমেরিকা”

মার্কিন চাপ সত্ত্বেও তুরস্ককে এস-৪০০ আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পুরোদমে সরবরাহ করবে রাশিয়া। মঙ্গলবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্টর সহযোগী ইউরি উশাকভ একথা বলেন।

তিনি বলেন, গত জুনে ওসাকায় জি-২০ সম্মেলনের এক ফাকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও পরামর্শ দেন মার্কিন প্রেসিডেন্টর সঙ্গে যোগাযোগ করতে।

তিনি বলেন, মস্কো সচেতন রয়েছে যে, তুরস্ককে এ চুক্তি বাতিলের জন্য যুক্তরাষ্ট্র উসকানি দিচ্ছে। সোচির দক্ষিণ রিসোর্ট শহরে এক সংবাদ সম্মেলনে উশাকভ এসব কথা বলেন।

মঙ্গলবার মাইক পম্পেও সোচিতে পৌঁছে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সারগে ল্যাভরবের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। পরে তিনি ৯০ মিনিট পুতিনের সঙ্গে বৈঠক করেন।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কেন চাপ সৃষ্টি করে তা আমরা জানি। কিন্তু চুক্তি পুরোদমে বাস্তবায়ন হবে। ওই বিষয় বাস্তবায়নে কয়েক মাস আগেই আমরা সিদ্ধান্তে পৌঁছেছি।

উশাকভ বলেন, জি-২০ সম্মেলন জাপান হয়েছিল। আমরা যে কোনো যোগাযোগের জন্য উন্মুক্ত রয়েছি এবং সবিস্তারবিবরণী প্রস্তাবের জন্য অপেক্ষা করছি।

তিনি বলেন, পুতিন এবং পম্পেওর সঙ্গে আফগানিস্তানের সমস্যা নিয়ে কথা হয়েছে। এ সময় আমাদের প্রেসিডেন্ট আফগান মধ্যস্থতা একটি কঠিন সমস্যা নোটে উল্লেখ করে রাখেন। তালেবানদের কার্যক্রম নিয়েও আলোচনা হয়।

“দেশ ও জাতির শত্রু তারাই, যরা মাদরাসায় সন্ত্রাসের গন্ধ শুকে”

সেমিনারে প্রধান আলোচক ছিলেন, মুসলমানদের প্রথম কেবলা মসজিদে আকসার মেহমান শায়খ ড. আলী উমর ইয়াকুব আব্বাসী। প্রধান আলোচক তাঁর বক্তব্যে বলেন, বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতে মুসলমানদের ঐক্য-সংহতি বড় প্রয়োজন,

এ ঐক্য-সংহতির অভাবে মুসলমানরা আজ কঠিন পরিস্থিতির স্বীকার, গোটা বিশ্বে আজ তারা মার খাচ্ছে, হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছে, হচেছ নানা হয়রানী আরলাঞ্ছনার স্বীকার।

মুসলমানদের হৃদয়ের স্পন্দন, প্রথম কেবলা মসজিদুল আকসায় আজ ইহুদি ও সাম্রাজ্যবাদী শক্তির কঠিন থাবা। তিনি বলেন, মুসলিম ভূখন্ড পবিত্র ভূমি জেরুজালেম ইসরাইলের দখলে।

মুসরমানরা উদ্বাস্তু হয়ে বিধর্মীদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এ কঠিন অবস্থা থেকে মুক্তির একমাত্র উপায় মুসলমানদের ইমান-আকিদা, বিশ্বাস পরিশুদ্ধ করে এক কাতারে শামিল হয়ে সকল ভেদাভেদ ভুলে পরস্পরে ঐক্য-সংহতির সুদৃঢ় প্রাচীর গড়ে তোলা।

তিনি আরো বলেন অচিরেই মুসলমানরা বীরদর্পে বায়তুল মুকাদ্দাসে প্রবেশ করবে। তিনি বাংলাদেশের ওলামায়ে কেরামের অবদানের প্রশংসা করেন এবং বাংলাদেশে সূখ সমৃদ্ধি কামনা করে মুনাজাত করেন।

পরিষদের চেয়ারম্যান মুফতি জহির ইবনে মুসলিম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন, শায়খুল হাদীস আল্লামা আশরাফ আলী, আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, ড. আবু রেজা নিজাম উদ্দিন নদভী,

আতিকুল ইসলাম, শায়খ ড. কামাল আহমদ সুদান, শায়খ ফরিদ আহমদ খান, মাওলানা জোবায়ের আহমদ চৌধুরী, মাওলানা শেখ আজিম উদ্দিন, মুফতি মিজানুর রহমান সাঈদ, মাওলানা মাহফুজুল হক প্রমুখ।

মাদরাসাকে যারা যারা সন্ত্রাসবাদ বলে করে তারাই দেশ ও জাতির শত্রু বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, মাদরাসা মসজিদকে যারা সন্ত্রাসবাদ বলে আখ্যায়িত করে, তারা কারা তাদেরকে চিহ্নিত করতে হবে।

এরাই দেশ ও জাতির শত্রু। আজ বাংলাদেশ মাদরাসা কল্যাণ পরিষদের আয়োজনে মুসলিম উম্মার ঐক্য-সংহতি শীর্ষক আন্তর্জাতিক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আরো সংবাদ পরতে পারেন

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে