মোদীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন না মমতা !

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন না দেশটির পশ্চিম বঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার দুপুর ২টো ১৮ মিনিটে টুইট করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই এ কথা জানিয়েছেন।

মোদীর শপথ গ্রহণের মতো একটি অনুষ্ঠানকে একটি দল রাজনৈতিক লাভ তোলার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে চাইছে বলে অভিযোগ করে টুইটে তীব্র ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

বাংলায় ‘খুন হওয়া’ ৫৪ জন বিজেপি কর্মীর পরিবারকে মোদীর শপথ অনুষ্ঠানে হাজির করানোর যে পরিকল্পনা বিজেপি করেছে, তার জেরেই যে দিল্লি যাওয়ার সিদ্ধান্ত মমতা বাতিল করলেন, টুইটে তা-ও বুঝিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল চেয়ারপার্সন।

পঞ্চায়েত ভোটের আগে থেকে শুরু করে লোকসভা নির্বাচন শেষ হওয়া পর্যন্ত বাংলায় ৫০-এরও বেশি বিজেপি কর্মী ও সমর্থককে খুন হতে হয়েছে বলে বিজেপির দাবি। রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগ দিতে গিয়ে মৃত্যুর ঘটনাও রয়েছে। এদের সকলকেই ‘শহিদ’ আখ্যা দিয়েছে বিজেপি।

এদের পরিবারকে দিল্লিতে নরেন্দ্র মোদীর শপথ গ্রহণে নিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। মোট ৭০ জনকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বিজেপির এই সিদ্ধান্তেই ক্ষুব্ধ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৫৪ জন বিজেপি কর্মী বাংলায় খুন হয়েছেন বলে যে দাবি বিজেপি করছে, তা সর্বৈব মিথ্যা বলে নিজের টুইটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছেন।

তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘‘বাংলায় কোনও রাজনৈতিক খুন হয়নি। ব্যক্তিগত শত্রুতা, পারিবারিক কলহ বা অন্য কোনও বিবাদের কারণে এই সব মৃত্যু ঘটে থাকতে পারে, রাজনীতির সঙ্গে এ সবের কোনও সম্পর্ক নেই। আমাদের কাছে সে রকম কোনও রেকর্ড নেই।’’

সুত্র: ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম

ঈদ উপলক্ষে তুরষ্কে তিন দিন পরিবহন ভাড়া ফ্রি করার ঘোষণা

তুরস্কে প্রতি বছরের মতো এবারও পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সব ধরনের পরিবহনের ভাড়া ফ্রি ঘোষণা করা হয়েছে। তুরস্ক সরকার তাদের দেশের জনসাধারণের ঈদকে উপভোগ্য করে তোলার জন্য প্রতিবছর ফ্রি ভাড়া ঘোষণা করে থাকে।

উক্ত ঘোষণার আওতায় শুধুমাত্র তুরস্কের নাগরিক না তুরস্কে বসবাসরত সকল দেশের নাগরিক এই সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। খবর ডেইলি সাবাহ’র। উল্লেখ্য, প্রতিবছর ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা উপলক্ষে তুরস্কে সব ধরনের পরিবহন বিশেষ করে বাস মেট্রোরেল এবং লঞ্চ এর ভাড়া ফ্রি করে দেওয়া হয়। এছাড়া পবিত্র রমজান মাসে পরিবহনের ভাড়ার প্রায় অর্ধেক করা হয়। খাদ্যপন্যের দামের ওপরও থাকে বিশেষ ছাড়।

মুসলিম স্বৈরশাসকরা নিজেদের দেশ ধ্বংস করে হলেও ক্ষমতায় থাকতে চায়: এরদোয়ান

মুসলিম বিশ্বের দেশগুলোর স্বৈরশাসকদের সমালোচনা করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোয়ান। বলেছেন, তারা নিজেদের দেশ ধ্বংস করে হলেও ক্ষমতায় থাকতে চায়। তিনি বলেছেন, মুসলিম বিশ্বের জন্য আজ বড় প্রয়োজন শান্তি, প্রশান্তি ও স্থিতি অবস্থার। এ জন্য উন্মুখ হয়ে রয়েছে মুসলিম জাহান।

তুর্কি গণমাধ্যম ইয়েনিসাফাক জানিয়েছে, রাজধানী আঙ্কারায় এক ইফতার মাহফিলে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। এরদোগান বলেন, ‘সিরিয়ার মতোই স্বৈরাচারী শাসকরা তাদের ক্ষমতা রক্ষা করার জন্য কোনো নিয়ম ও নৈতিকতার ধার ধারে না, এরা নিজেদের দেশকে ধ্বংসস্তূপে পরিণত করতে পারেন।

অথচ মুসলিমরা আজ বিশ্ব শান্তি, প্রশান্তি ও স্থির অবস্থার জন্য উন্মুখ হয়ে রয়েছে।’ তুর্কি প্রেসিডেন্ট জোর দিয়ে বলেন, ইসলামী বিশ্বের বর্তমান হতাশাজনক অবস্থার জন্য যারা দায়ী তাদের প্রথম দলটি হলো মুসলমানরাই।

আরো সংবাদ পরতে পারেন

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে