ভারতে ঈদের নামাজে মুসল্লিদের ওপর হিন্দু সন্ত্রাসবাদী হামলা, আহত ১৭

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের নামাজের সময় মুসল্লিদের ওপর গাড়ি হামলা চালিয়েছে হিন্দু সন্ত্রাসবাদীরা।

আজ বুধবার সকালে পূর্ব দিল্লিতে একটি মসজিদে নামাজ পড়ার সময় এই হামলা হয়। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ১৭ জন মুসল্লি।

নয়াদিল্লি পুলিশ বলছে, নামাজ পড়ার সময় মুসল্লিদের ওপর দ্রুতগতির একটি গাড়ি চালিয়ে দেয়ার ঘটনায় ১৭ জন আহত হয়েছেন।

দেশটির ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিয়া ট্যুডে বলছে, পূর্ব দিল্লির খুরেজি এলাকার একটি মসজিদে গাড়ি হামলা হয়েছে। ওই হামলার পরপর মুসল্লিরা তাৎক্ষণিকভাবে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

শাহদারা পুলিশের উপ-কমিশনার মেঘনা যাদব বলেন, হামলায় আহত অন্তত ১৭ জনকে উদ্ধারের পর স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আমরা অভিযুক্ত চালকের অবস্থান শনাক্ত করার চেষ্টা করছি। আমরা তাকে গ্রেফতার করবো।

কীভাবে নিরাপত্তা পরিস্থিতি বিঘ্ন করে মুসল্লিদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটলো, তা জানতে তদন্ত শুরু হয়েছে। নামাজের সময় আশেপাশের এলাকায় অবস্থানরত মানুষের জবানবন্দি নিচ্ছে পুলিশ।

এদিকে, বিহারে ঈদের নামাজ পড়তে আসা মুসল্লিদের ওপর তীর-ধনুক নিয়ে হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এতে প্রায় ১০জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

ওই হামলার কিছু ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

এছাড়া ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় বুধবার সকালের দিকে হামলার ঘটনা ঘটেছে। খবর এনডিটিভির’র।

এঘটনায় এক নারী নিহত ও আরো একজন আহত হয়েছেন।

আরও সংবাদ

সৌদি বাদশাহকে অপমান করলেন ইমরান খান!

সৌদি বাদশা সালমান বিন আব্দুল আজিজকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান অপমান করেছেন বলে অভিযোগ করেছে রিয়াদ।মক্কায় ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা ওআইসি’র শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে এসে ইমরান খান রাজা সালমানের সঙ্গে প্রটোকল অনুযায়ী আচরণ করেন নি বলে অভিযোগ সৌদির।সোমবার এ খবর জানিয়েছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম জানিয়েছে,পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান গাড়ী থেকে নেমে লাল গালিচার ওপর দিয়ে বাদশা সালমানের কাছে যান।সালমান তার সঙ্গে হাত মেলানোর পর দু’জনের মধ্যে একটু কথা হয়। এরপরই ইমরান খান আর রাজার দিকে না তাকিয়ে সরাসরি দোভাষীর সঙ্গে কথা বলতে থাকেন।

এরপর দোভাষীর দিকে তাকিয়ে রাজার উদ্দেশ্যে কিছু বলেন এবং রাজাকে তা বলতে বলেন। এরপর রাজার জবাবের অপেক্ষায় না থেকে সম্মেলনস্থলের দিকে চলে যান।সৌদি আরবের অনেকেই এই আচরণকে রাজার জন্য চরম অপমান হিসেবে মনে করছেন। সৌদি আরব এরইমধ্যে এ বিষয়ে পাকিস্তানের কাছে প্রতিবাদ জানিয়েছে।

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে