তিউনিসিয়ার উপকূলে নৌকায় ভাসছে ৬৪ বাংলাদেশি !

গত ১২ দিন ধরে ৭৫ জন যাত্রী নিয়ে তিউনিসিয়ার সাগর তীরে ভাসছে একটি নৌকা। তিউনিসিয়া কর্তৃপক্ষ ঢোকার অনুমতি না দেওয়ায় নৌকাটি সাগরে ভাসছে। নৌকায় থাকা যাত্রীদের মধ্যে ৬৪ জনই বাংলাদেশি বলে জানা গেছে।

অবশ্য মিশরীয় নৌকা সাগর থেকে তাদের উদ্ধার করেছে। তবে তিউনিসিয়ার দক্ষিণ পূর্বের শহর মেডিনাইন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তাদের অভিবাসী কেন্দ্রটি এরই মধ্যে পূর্ণ হয়ে রয়েছে। উপকূলীয় শহর জার্জিস থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে নৌকাটি রয়েছে।

তিউনিসিয়া সরকারের একটি সূত্র সংবাদসংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে, এই অভিবাসীরা খাবার এবং চিকিৎসা সেবা প্রত্যাখান করে তাদেরকে ইউরোপে ঢুকতে দেয়ার দাবি জানিয়েছে। কারণ তারা এই লক্ষ্য নিয়েই যাত্রা শুরু করেছিলেন।

রেডক্রিসেন্টের কর্মকর্তা মঙ্গি স্লিম বলেছেন, ‘নৌকাটিতে অবস্থানরতদের চিকিৎসা দেয়ার জন্যে একটি মেডিকেল টিম গিয়েছিল। তবে অবস্থানরতরা তাদেরকে প্রত্যাখান করেছে।’

৭৫ জনের এই দলটি লিবিয়া থেকে যাত্রা করে। যার মধ্যে ৬৪ জন বাংলাদেশি এবং অন্যরা মরক্কো, সুদান এবং মিশরের। তবে নৌকায় অবস্থানরতদের ব্যাপারে সবকিছু এখনও পরিষ্কার নয় বলে জানিয়েছেন রেড ক্রিসেন্ট।

সাধারণত প্রতিবেশী দেশ লিবিয়ার পশ্চিম তীর আফ্রিকান অভিবাসীদের ইউরোপে প্রবেশের জন্যে ব্যবহার হয়ে থাকে। মানব পাচারকারীদের মোটা অর্থ প্রদানের বিনিময়ে তারা ইউরোপে নৌকায় যাত্রা করে।

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে