বাবরি মস‌জিদ মামলার রায় মুস‌লিম বিশ্ব ঘৃণাভভরে প্রত্যাখ্যান করেছে : আল্লামা শফী

0

সলাম বাংলাদেশ এর আমীর, দারুল উলূম হাটহাজারীর মহাপ‌রিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেছেন, আলোচিত বাবরি মসজিদ মামলা নি‌য়ে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট যে রায় দি ‌য়ে‌ছে তা চরম পক্ষপাতমূলক। মূলত ক্ষমতাসীন হিন্দুত্ববাদী ‌মোদী সরকার‌কে খু‌শি কর‌তে এ রায়‌ প্রদান করে‌ছে ভারতীয় সুপ্রি‌ম কোর্ট। মুস‌লিম বিশ্ব এ রায় ঘৃণাভ‌রে প্রত্যাখ্যান ক‌রে‌ছে।

আজ ১০ ন‌ভেম্বর র‌বিবার গণমাধ্য‌মে পাঠা‌নো এক বিবৃ‌তি‌তে হেফাজ‌ত আমি এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

‌তি‌ন ব‌লেন, ১৫২৮ সা‌লে মোঘল সম্রাট বাবরের সেনাপতি মীর বাকি কর্তৃক তৈ‌রি করা হয় বাবরি মসজিদ । উক্ত স্থা‌নে কথিত ও ক‌ল্পিত রাম মন্দিের থাকার অজুহা‌তে ১৯৯২ সা‌লের ৬ ডিসেম্বর উ’গ্রবাদী হিন্দুরা বাবরি মসজিদ শহীদ ক‌রে সাম্প্রদা‌য়িক দা’ঙ্গা সৃ‌ষ্টি করে শত শত মুসলমানকে শহীদ করা হয়। মুস‌লিম বিশ্ব সে ক্ষত এখ‌নো ভু‌লে‌নি।

তিনি আরো ব‌লেন, বাবরি মস‌জিদের বিতর্কিত মামলার ‌পক্ষপাতমূলক রায় এমন সময় দেয়া হ‌লো যখন ভারতের মুস‌লিম জন‌গো‌ষ্ঠি হিন্দু‌দের হা‌তে চরমভা‌বে নি’র্যা‌তিত হ‌চ্ছে। গো মাংস ভক্ষণ ও জয়‌শ্রীরাম না বলার কথিত অপরা‌ধে (?) পি‌টি‌য়ে হ’ত্যা করা হচ্ছে। বা‌ড়িঘ‌রে অ’গ্নি‌সং‌যোগ করা হ‌চ্ছে। আমি ম‌নে ক‌রি, এ রা‌য়ে হিন্দু‌দের খু‌শি করা হ‌য়ে‌ছে। এর মাধ্য‌মে কট্টর হিন্দুদের উগ্রতা আরো বেড়ে যা‌বে।

আল্লামা আহমদ শফী আরো ব‌লেন, প্রত্নতত্ত্ববিদ গণের বহুবার অনুসন্ধানের পরও সেখা‌নে কোন ম‌ন্দি‌রের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি। এরপরও বাব‌রি মস‌জি‌দের স্থা‌নে রাম মন্দির স্থাপ‌নের অযৌক্তিক রায় দেয়া হ‌য়ে‌ছে। আমা‌দের আশংকা এতে‌ সাম্প্রদা‌য়িক সম্প্রী‌‌তির চরম অবন‌তি হ‌বে। এহেন মুহূ‌র্তে মুস‌লিম বি‌শ্বের বাবরি মস‌জি‌দ ইস্যু‌তে শক্তিয়শালী অবস্থান তৈ‌রি করা এবং ভারতীয় মু‌সলিমদের পা‌শে দাঁড়া‌নো উচিঁৎ।

আরো সংবাদ

টাইগারদের হারাতে ধর্মীয় গুরুর শরণাপন্ন ভারতীয় কোচ!

বাংলাদেশের কাছে প্রথম টি-টোয়েন্টি হেরে বিপাকে পড়ে যায় ভারত। দ্বিতীয় ম্যাচে হারলেই লজ্জা বরণ করতে হতো তাদের। তাই নিরুপায় হয়ে সিরিজ বাঁচাতে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টির আগে ভিন্ন পথ অবলম্বন করেন ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী!

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, দ্বিতীয় ম্যাচের আগে ধর্মীয় গুরু বাপা মোহান্ত স্বামীর সঙ্গে দেখা করেন শাস্ত্রী। শুধু তিনি নন, ভারতীয় দলের কয়েকজন খেলোয়াড়ও তার কাছ থেকে আশীর্বাদ নিয়ে আসেন।

বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, ওই সময় শাস্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন টিম ইন্ডিয়ার বাঁহাতি ওপেনার শিখর ধাওয়ানসহ বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। স্বামী নারায়ণের মন্দির যান তারা। গিয়ে বাপার কাছে আশীর্বাদ প্রার্থনা করেন।

পরিপ্রেক্ষিতে পুরো সিরিজের জন্য ভারতীয় দলকে আশীর্বাদ করে দেন এ ধর্মীয় গুরু। পাশাপাশি সবার (ক্রিকেটারসহ স্টাফদের) সুস্বাস্থ্যের জন্য ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়া টুইটারে নিজের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে বাপার সঙ্গে বসা দুইটি ছবি আপলোড করেছেন শাস্ত্রী। দ্বিতীয় ম্যাচ হারলেই প্রথমবারের মতো নিজ দেশে বাংলাদেশের কাছে সিরিজ হারতে হতো ভারতকে। তবে প্রথম ম্যাচ হারের কারণেই তড়িঘড়ি করে ধর্মীয় গুরুর শরণাপন্ন হন কি না- এমন কিছু নিশ্চিত করে জানাননি ভারতের কোচ। কিন্তু ঘটনাটি মিলে যাওয়ায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হাস্যরসের শিকার হচ্ছেন তিনি।

তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ ১-১ সমতায়। রোববার হবে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ। প্রথম ম্যাচে ৭ উইকেটের দাপুটে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে ৮ উইকেটের বড় জয়ে সমতায় ফেরে ভারত