সবাইকে ছেড়ে না ফেরার দেশে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ!

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান (জাপা) এবং সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। রোববার (১৪ জুলাই) সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

তাঁর মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)। গত ২৬ জুন থেকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন ছিলেন এইচএম এরশাদ। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর।

১৯৩০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি রংপুর জেলায় দিনহাটায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৫২ সালে তিনি পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে কমিশন লাভ করেন।

১৯৬০ – ১৯৬২ সালে তিনি চট্টগ্রাম ইষ্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের কেন্দ্রে অ্যাডজুট্যান্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ১৯৬৬ সালে তিনি কোয়েটার স্টাফ কলেজ থেকে স্টাফ কোর্স সম্পন্ন করেন। ১৯৬৮ সালে তিনি শিয়ালকোটে ৫৪ ব্রিগেডের মেজর ছিলেন।

১৯৬৯ সালে লেফটেন্যান্ট কর্নেল হিসেবে পদোন্নতি লাভের পর ১৯৬৯-১৯৭০ সালে ৩য় ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট-এর অধিনায়ক ও ১৯৭১ – ১৯৭২ সালে ৭ম ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট এর অধিনায়ক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

নাইজেরিয়ার শিশুদের পাশে দাঁড়িয়েছেন মেসি; শিক্ষার জন্য নগদ ১০০ কোটি ডলার দান!

নাইজেরিয়ার শিশুদের শিক্ষার জন্য নগদ ১০০ কোটি ডলার দান করলেন মেসি। এর আগেও অনেক দেশের শিশুদের পাশে দাঁড়িয়েছেন মেসি। কয়েকদিন আগেই নিজের দেশের মানুষের জন্য তার মালিকানাধীন রেস্টুরেন্টের দরজা উন্মুক্ত করে দিয়েছেন মেসি,

এবং কর্মীদের বলেছেন রাস্তায় বসবাসকারী মানুষদের বিনামূল্যে খাবার বিতরণের জন্য। সব ছাপিয়ে আবারও আলোচনায় মেসি। এবার নিজের দেশ নয় বরং নাইজেরিয়ার শিশুদের পাশে দাঁড়িয়েছেন এই ক্ষুদে জাদুকর।

শিশুদের শিক্ষার জন্য নগদ ১০০ কোটি ডলার দান করলেন তিনি। নিকারাগুয়ার বিপক্ষে জয়ের পর পাওয়া ট্রফিটি নিলামে তুলেছিলেন মেসি এবং বলেছিলেন নিলাম থেকে প্রাপ্ত টাকার পুরোটাই ব্যয় করবেন তিনি-

নাইজেরিয়ার শিশুদের শিক্ষার জন্য। নিলামে তোলা ট্রফিটির দাম উঠে ১০০ কোটি ডলার। এই বিশাল অর্থের পুরোটাই ব্যয় করা হবে নাইজেরিয়ায় স্কুল নির্মাণ এবং ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষার উপকরণের পিছনে।

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে