বিপন্ন সুন্দরবনের অপরূপ সৌন্দর্য !

নৈসর্গিক সৌন্দর্যের অপরূপ লীলাভূমি সুন্দরবন। বিশ্বের সেরা ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট। জাতীয় অর্থনীতিতে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। সুন্দরবনের কেওড়া ফল উপকূলীয় মানুষের জন্য খুবই উপকারী। উপকূলবাসী ছাড়াও সহজলভ্য এ ফল যেকোনো মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য কয়েকটি ইতিবাচক প্রভাব রাখতে সক্ষম।

এ তথ্য দিয়েছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. শেখ জুলফিকার হোসেন। সুন্দরবনের কেওড়া ফল নিয়ে গবেষণা বিভিন্ন জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। গবেষণা কর্মের ভূমিকায় তিনি জানান, জলবায়ু পরিবর্তন বাংলাদেশকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দিয়েছে।

এসব ঝুঁকির অন্যতম হলো সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি এবং উত্তরাঞ্চলের নদ-নদীগুলোর মিঠা পানির প্রবাহ হ্রাস পাওয়া। এর ফলে বাংলাদেশের সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলের মাটি ও নদ-নদীতে সমুদ্রের পানি ঢুকে লবণাক্ততায় আক্রান্ত হয়েছে। এ সমস্যার সমাধান অথবা এর সাথে খাপ খাওয়ানোর উপায় খুঁজে বের করে কাজে লাগানো আমাদের জাতীয় অস্তিত্বের জন্য জরুরি।

কেওড়া গাছ প্রচুর জন্মে। তা ছাড়া নতুন সৃষ্ট চরে এ ম্যানগ্রোভ গাছ প্রাকৃতিকভাবে জন্মে থাকে। লবণসহিষ্ণু এ গাছে প্রচুর ফল হয়, যা কেওড়া ফল হিসেবে পরিচিত। সুন্দরবনসংলগ্ন উপকূলীয় জেলাগুলোর লোকজন কেওড়া ফলের সাথে ছোট চিংড়ি মাছ ও মসুরের ডাল রান্না করে খায়।

তা ছাড়া কেওড়া ফল দিয়ে আচার ও চাটনি তৈরি হয়। এ ফল পেটের অসুখের চিকিৎসায় বিশেষত, বদ হজমে ব্যবহৃত হয়। অন্য দিকে, সুন্দরবনের মধুর একটা বড় অংশ আসে কেওড়া ফুল থেকে। এ গাছটি উপকূলীয় মাটির ক্ষয়রোধ করে। এ ছাড়া মাটিকে দেয় দৃঢ়তা ও উর্বরতা।

এ গাছটি মাটি রক্ষা এবং লবণাক্ত পরিবেশের উন্নয়ন ঘটাতে পারে। ড. শেখ জুলফিকার হোসেনের গবেষণা থেকে জানা যায়, কেওড়া ফলে ১২ ভাগ শর্করা, চার ভাগ আমিষ, ১.৫ ভাগ ফ্যাট, প্রচুর ভিটামিন বিশেষত ভিটামিন সি এবং এর ডেরিভেটিভগুলো রয়েছে।

কেওড়া ফল পলিফেলন, ফ্লাভানয়েড, অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট আনস্যাচুরেটেড মেগা ফ্যাটি এসিড বিশেষ করে লিনোলেয়িক এসিডে পরিপূর্ণ। তাই মনে করা হয়, ফলটি শরীর-মন সতেজ রাখার সাথে সাথে বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধে কার্যকর। চায়ে বিভিন্ন ধরনের পলিফেলন প্রচুর রয়েছে।

এ দেশে ফলের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পলিফেলন রয়েছে আমলকীতে, তারপর হলো কেওড়া ফলের অবস্থান। কেওড়া ফলে সমপরিমাণ আপেল ও কমলা ফলের তুলনায় অনেক বেশি পলিফেলন ও পুষ্টি উপাদান রয়েছে।

আরো সংবাদ পরতে পারেন

মতামত দেওয়া বন্ধ আছে