আবরারের ছোট ভাইকে পুলিশের মারধর

0

বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের ছোটভাই ফায়াজকে মা’রধর করেছে পুলিশ। আজ বুধবার বুয়েট ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম আবরারদের বাড়ি কুষ্টিয়ায় গেলে এলাকাবাসীর সঙ্গে পুলিশের সং’ঘর্ষ বাধে। এসময় আবরারের ছোট ভাইসহ আ’হত হন তিনজন।

বুয়েট ভিসি শুধুমাত্র আবরারের কবর জিয়ারত করতে পেরেছেন। তিনি আবরারের বাড়িতে ঢুকতে পারেননি। বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী তাকে বাধা দেন। এসময় পুলিশের সঙ্গে এলাকাবাসীর সং’ঘর্ষ হয়।

এসময় আবরারের ছোট ভাই ফায়াজ, তার ফুপাতো ভাইয়ের স্ত্রী ও আরও একজন নারী আ’হত হন বলেও তিনি জানান।

এর আগে সকালে ছাত্রলীগ নেতাদের পি’টুনিতে মা’রা যাওয়া বুয়েট ছাত্র আবরারকে দা’ফনের এক দিন পর কুষ্টিয়ায় তার বাড়ির উদ্দেশে যান ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম।

আরো সংবাদ

আবরার হ’ত্যার বিচার চাইলেন সোহেল তাজ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরেবাংলা হলের একাধিক কক্ষে নিয়ে মা”রধরের কারণেই মারা যান শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ। রোববার দিনগত রাতে বুয়েটের শেরে বাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে তার ম’রদেহ উদ্ধার করা হয়।

এই ঘটনার পর সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ সোমবার (৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে একটি পোষ্ট করেন।
পাঠকদের জন্য তার সেই স্ট্যাটাসটি হুবুহু তুলে ধরা হলো-

এরকম যেন আর না হয়। দোষীদের আইনের আওতায় এনে সঠিক বিচার করতে হবে।