ভোলা ইস্যুতে দুপুর ১২টায় জরুরী সংবাদ সম্মেলনে আসছেন আল্লামা শফী !

0

ভোলায় আল্লাহ ও মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে নিয়ে এক হিন্দু যুবকের অবমাননাকর বক্তব্যকে কেন্দ্র করে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে পুলিশের গু’লিতে কমপক্ষে ৪জন নি’হতের ঘটনায় হেফাজতে ইসলামের অবস্থান জানাতে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন সংগঠনটির আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

আজ দুপুর ১২টায় চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে অবস্থিত জামিয়া দারুল উলুম মুঈইল ইসলাম (হাটহাজারী মাদরাসা) আল্লামা শফীর নিজ কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। ইনসাফকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হেফাজতের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী।

ভোলায় নবীপ্রেমিক শহীদদের প্রতি ফোটা র’ক্তের বদলা নেওয়া হবে : আল্লামা বাবুনগরী

ভোলার বোরহানুদ্দিনে ফেসবুক মেসেঞ্জারে ও আল্লাহ মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে নিয়ে কটূক্তিকারী হিন্দু বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র সর্বোচ্চ শা’স্তি ফাঁ’সির দাবিতে আয়োজিত বি’ক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিলে নবীপ্রেমিক তৌহিদী জনতার ওপর পুলিশ

কর্তৃক নির্বিচারে গু’লি ব’র্ষণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও হাটহাজারী মাদরাসার সহযোগী পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী। আজ ২০ অক্টোবর সংবাদ মাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী বলেন,

৯০% মুসলিম অধ্যুষিত দেশে মহান আল্লাহ তায়া’লা ও আমাদের কলিজার টুকরা মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে নিয়ে কটুক্তি করবে তা কখনো মেনে নেওয়া যায় না।

বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক দেশ শান্তিপূর্ণ মিছিল মিটিংয়ের মাধ্যমে নিজের দাবী- দাওয়া পেশ করা এবং দোষীদের বিচার চাওয়া নাগরিক অধিকার।শান্তিপূর্ণ মিছিলে এভাবে নির্বিচারে গু’লি চালিয়ে নবীপ্রেমিকদের শহীদ করে লক্ষ কোটি তৌহিদী জনতার কলিজায় আঘাত করা হয়েছে।

নবীপ্রেমিকদের শরীর থেকে র’ক্ত ঝরবে তা দেশের কেহ মেনে নেবে না। আল্লামা বাবুনগরী আরো বলেন, আমরা বিশ্বনবী সা.কে নিজেদের প্রাণের চাইতেও বেশী মুহাব্বাত করি। নবীর ইজ্জত র’ক্ষায় লক্ষ কোটি তৌহিদী জনতা জান দিতে প্রস্তুত। শাহবাগে নাস্তিক মুরতাদরা যখন বিশ্বনবীর শানে কটুক্তি করেছিল তখন কেবলমাত্র নবীর সম্মান রক্ষার জন্য আমরা লাখো মুমিন শাপলা চত্বরে উপস্থিত হয়েছিলাম।

বিশ্বনবীর সম্মান রক্ষায় প্রয়োজনে আবারো শাপলা চত্বর কায়েম করা হবে। হুশিয়ারী উচ্চারণ করে হেফাজত মহাসচিব বলেন, ভোলায় নবীপ্রেমিক শহীদদের প্রতি ফোটা র’ক্তের বদলা নেওয়া হবে। অনতিবিলম্বে কটূক্তিকারী কুখ্যাত সেই বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁ’সি নিশ্চিত করতে হবে।

এবং হ’তাহতদের সঠিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে নবীপ্রেমিকদের ওপর গুলিকারী অভিযুক্ত সেই পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে যথাযত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী পুলিশের গু’লিতে শহীদদের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করে এ ঘটনার বিচার দাবী করে বলেন,

দ্রুত সময়ে মধ্যে সুষ্ঠু বিচার না হলে বিশ্বনবীর সম্মান রক্ষায় দেশের কোটি কোটি নবীপ্রেমিক তৌহিদী জনতা নাস্তিক মুরতাদদের বি’রোদ্ধে দূর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে বাধ্য হবে।

ইমরান খানের শান্তির উদ্যোগে সৌদির সাড়া ইতিবাচক: কোরাইশি

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরাইশি বলেছেন, উপসাগরীয় অঞ্চলে উত্তেজনা লাঘবে ইমরান খানের চেষ্টায় ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে সৌদি আরব। শান্তি প্রতিষ্ঠার একটি সুযোগ দিতে রিয়াদ একমত হয়েছে বলেও জানালেন তিনি। পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ডনের খবর থেকে এমন তথ্য জানা গেছে।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সৌদি নেতৃবৃন্দ ইতিবাচকভাবে সাড়া দিয়েছেন। তারা একমত পোষণ করেছেন যে কূটনৈতিক পথই বেছে নিতে হবে এবং আলোচনার মাধ্যমে মতপার্থক্য দূর করতে হবে। সৌদি সফরে দেশটির বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ইমরান খান।

খবরে বলা হয়েছে, রিয়াদে পাকিস্তানি প্রতিনিধিদের আঞ্চলিক সংঘাত নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। ইরানি মানসিকতা ও পরিস্থিতি নিয়ে ইসলামাবাদের দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরা হয়েছে। গত রোববার ইমরান খান তেহরান সফরে গেলে দেশটির নেতৃবৃন্দ তার চেষ্টাকে স্বাগত জানিয়েছেন।

এক সাক্ষাৎকারে ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ বলেছেন, সরাসরি কিংবা মাধ্যম ব্যবহার করে সৌদির সঙ্গে আলোচনায় তার দেশ প্রস্তুত। কোরাইশি বলেন, আলোচনার মূল বক্তব্য তুলে ধরতে চাইলে আমাকে বলতে হবে যে, এ অঞ্চলজুড়ে পুঞ্জীভূত হওয়া যুদ্ধ ও সংঘাতের মেঘ কেটে গেছে।

মূলত আঞ্চলিক সংঘাত এড়াতে ভূমিকা রাখতেই ইমরান খানের এই সফর, জানিয়ে কোরাইশ বলেন, কারণ যে কোনো সংঘাত এ অঞ্চল ও বৈশ্বিক অর্থনীতির জন্য বিপর্যয়কর পরিণতি বয়ে আনবে। ইয়েমেনে একটি অস্ত্রবিরতির সম্ভাবনাও উজ্জ্বল বলে জানিয়েছেন পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী।